করোনায় বাড়িতে পরীক্ষা কক্ষ পরির্দশকের ভূমিকায় মায়েরা পঞ্চগড়ে বাড়ি বাড়ি পরীক্ষা

করোনায় বাড়িতে পরীক্ষা কক্ষ পরির্দশকের ভূমিকায় মায়েরা পঞ্চগড়ে বাড়ি বাড়ি পরীক্ষা

করোনায় বাড়িতে পরীক্ষা কক্ষ পরির্দশকের ভূমিকায় মায়েরা পঞ্চগড়ে বাড়ি বাড়ি পরীক্ষা

     

এএনবি পঞ্চগড় প্রতিনিধি ঃ বিদ্যালয় থেকে প্রশ্ন তৈরি করে খামে ভরে শিক্ষার্থীদের বাড়ি বাড়ি পাঠিয়ে দেওয়া হচ্ছে। আর সেই প্রশ্ন দিয়েই মায়েরা তাঁদের সন্তানদের পরীক্ষা নিচ্ছেন। করোনায় পিছিয়ে পড়া শিক্ষার্থীদের এগিয়ে নিতে এভাবে বাড়িতেই মডেল টেস্ট নেওয়া শুরু করেছে পঞ্চগড়ের আটোয়ারী রাধানগর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আয়ুব আলীর নির্দেশনায় পিছিয়ে পড়া শিক্ষার্থীদের এগিয়ে নিতে ব্যতিক্রমী এই উদ্যোগ নেওয়া হয়। গত সোমবার থেকে দশম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা নেওয়া শুরু হয়। ক্রমান্বয়ে প্রত্যেক শ্রেণির ছাত্রীদের এই পদ্ধতিতে পরীক্ষা নেওয়া হবে।

বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ জানায়, করোনায় সারা দেশের মতো ১৭ মার্চ থেকে বন্ধ রয়েছে পঞ্চগড়ের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো। দীর্ঘদিন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় শিক্ষা কার্যক্রমে বড় ছন্দপতন ঘটেছে। শিক্ষার্থীদের নিয়মিত পড়াশোনায় স্থবিরতা নেমে এসেছে। বিদ্যালয় বন্ধ থাকায় পিছিয়ে পড়েছে শিক্ষার্থীরা। বিশেষ করে অষ্টম ও দশম শ্রেণির শিক্ষার্থীরা চরম বিপাকে পড়েছে। এ পরিস্থিতির মধ্যে ওই বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা প্রতিটি বিষয়ে প্রশ্ন তৈরি করে আলাদা আলাদা খামে ভরে বিনা মূল্যে তা শিক্ষার্থীদের বাড়িতে পৌঁছে দিচ্ছেন। প্রত্যন্ত এলাকার অভিভাবকরা সেই প্রশ্ন বাক্সে তালাবদ্ধ করে রাখছেন। প্রতিদিন পরীক্ষার সময় বাক্স খুলে খাম থেকে প্রশ্ন বের করে দেন তাঁরা।

স্কুলের আদলে পরীক্ষা নেওয়া হলেও এখানে কক্ষ পরিদর্শকের ভূমিকায় থাকেন মা। প্রশ্ন অনুযায়ী যে যার মতো উত্তর করে নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই মায়ের হাতে খাতা তুলে দিচ্ছে। কেউ ঘরে আবার কেউ বারান্দায় বসে পরীক্ষা দিচ্ছে। পাশেই বসে খেয়াল রাখছেন মায়েরা। ছাত্রীদের প্রতিটি বাড়িই এখন হয়ে উঠেছে একেকটি পরীক্ষাকেন্দ্র। বাড়িতে পরীক্ষা দেওয়ার সুযোগ পাওয়ায় উচ্ছ¡সিত শিক্ষার্থীরা। অভিভাবকদের মধ্যে বিষয়টি নিয়ে বেশ সাড়া পাওয়া যাচ্ছে।

পঞ্চগড় জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা শাহীন আকতার বলেন, ‘রাধানগর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে এই উদ্যোগ সত্যিই প্রশংসার দাবি রাখে’।