ডাক বিভাগের মহাপরিচালকের অপসারণের সুপারিশ

ডাক বিভাগের মহাপরিচালকের অপসারণের সুপারিশ

ডাক বিভাগের মহাপরিচালকের অপসারণের সুপারিশ

এএনবি ঃ করোনা পজিটিভ হওয়ার পরেও তথ্য গোপন করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দেখা এবং দুর্নীতির অভিযোগ থাকায় ডাক বিভাগের মহাপরিচালক সুধাংশু শেখর ভদ্রের স্বপদে থাকা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে সংসদীয় কমিটি। তদন্ত স্বার্থে তার অপসারণ করা উচিত বলে মনে করে কমিটি।

বুধবার (২৩ সেপ্টেম্বর) সংসদ ভবনে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির বৈঠকে এ নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করা হয়।

কমিটির সভাপতির অনুপস্থিতিতে উক্ত কমিটির সদস্য জনাব বেনজীর আহমদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় কমিটির সদস্য তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, ফাহমি গোলন্দাজ বাবেল, আহমেদ ফিরোজ কবির, মো. নুরুল আমিন, মনিরা সুলতানা, জাকিয়া পারভীন খানম এবং অপরাজিতা হক বৈঠকে অংশগ্রহণ করেন।

সভাপতির বিশেষ আমন্ত্রণে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বৈঠকে যোগদান করেন।

বৈঠকে সভাপত্বিকারী কমিটির সদস্য বনেজীর আহমদে বলেন, কমিটির বৈঠকে সবাই একমত হয়ে তাকে অপসারণের সুপারিশ করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ নিয়ে দুদক অনুসন্ধান করছে। এছাড়া তিনি করোনা পজিটিভ হয়েও প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে গিয়েছিলেন, যা ঠিক হয়নি। এসব বিষয়ে কমিটির বৈঠকে আলোচনা হয়। পরেই উপস্থিত সকল সদস্য তাকে অপসারণ করার কথা বলেন। পরে সেই প্রস্তাব কমিটির সুপারিশ হিসেবে গৃহিত হয়।

বিগত বৈঠকের সিদ্ধান্তসমূহের বাস্তবায়ন অগ্রগতি এবং বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পের সর্বশেষ অগ্রগতি সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়। হাইটেক পার্কের বিভিন্ন প্রকল্পের কার্যক্রমের অগ্রগতি তুলে ধরা হয়। আইটি ভিলেজের জন্য বরাদ্দকৃত ভূমি সম্পর্কিত মামলাটি দ্রুত নিষ্পত্তির লক্ষ্যে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধি সমন্বয়ে কমিটি গঠন করার পরামর্শ দেওয়া হয়। এছাড়া টেশিস কর্তৃক নির্মিত দোয়েল নামীয় ল্যাপটপের মান ও বাজারজাত করার বিষয়টি নিয়ে বৈঠকে আলোচনা হয়।

দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে ডিজিটাল সেবা উন্নতকরণ, ডাক বিভাগের উন্নয়ন ও সেবার মান বৃদ্ধি এবং টেলিটকের কার্যক্রমকে আরও সম্প্রসারণের প্রতি গুরুত্ব দেওয়ার জন্য কমিটি সুপারিশ করে।

ডাক বিভাগের মহাপরিচালক সুধাশু শেখর ভদ্রের দুর্নীতির বিষয়টি নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করা হয়। তদন্তের ক্ষেত্রে তার স্বপদে বহাল থাকার বিষয়টি দেশের সকলকে প্রশ্নবিদ্ধ করেছে মর্মে সভায় মতামত ব্যক্ত করা হয়। করোনা পজিটিভ থাকা অবস্থায় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাতের বিষয়টিও সন্দেহজনক মর্মে অভিমত প্রকাশ করা হয়। তাই অতি দ্রুত তাকে দায়িত্ব হতে অপসারণের জন্য বৈঠকে জোর সুপারিশ করা হয়।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের সচিব, হাইটেক পার্ক অথরিটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক, বিভিন্ন সংস্থার প্রধানসহ মন্ত্রণালয় এবং বাংলাদেশ জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাবৃন্দ বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।