তিন সচিবসহ প্রশাসনের ২১১ কর্মকর্তা করোনা মহামারীতে আক্রান্ত

আক্রান্ত কর্মকর্তাদের মধ্যে ১০ জন বর্তমানে বাসায় চিকিৎসা নিচ্ছেন। বাকি কর্মকর্তারা বাসায় আইসোলেশনে থেকে চিকিৎসা নিচ্ছেন। বিসিএস প্রশাসন ক্যাডারের বর্তমান ও সাবেক মিলিয়ে এখন পর্যন্ত ১১ জন কর্মকর্তা প্রাণঘাতী এ ভাইরাসের আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন।

তিন সচিবসহ প্রশাসনের ২১১ কর্মকর্তা করোনা মহামারীতে আক্রান্ত

এএনবি ঃ  নভেল করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) কারণে সৃষ্ট পরিস্থিতিতে পেশাগত দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে এখন পর্যন্ত দেশে বিসিএস প্রশাসন ক্যাডারের ২১১ জন কর্মকর্তা আক্রান্ত হয়েছেন। এর মধ্যে ১১৩ জন কর্মকর্তা ইতোমধ্যে চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে উঠেছেন।

আজ বৃহস্পতিবার জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় ও বাংলাদেশ অ্যাডমিনিস্ট্রেশন সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশন সূত্রে এসব তথ্য জানা যায়।

জানা যায়, আক্রান্ত বিসিএস প্রশাসন ক্যাডারের কর্মকর্তাদের মধ্যে তিনজন সচিবও রয়েছে। বাকি ২০৯ জন বিভিন্ন মন্ত্রণালয়, বিভাগ, সরকারি দপ্তর, জেলা প্রশাসকের কার্যালয়, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) কার্যালয়ের কর্মকর্তা। এদের মধ্যে ১০৪ জন মাঠ প্রশাসনে কর্মরত আছেন।

আক্রান্ত কর্মকর্তাদের মধ্যে ১০ জন বর্তমানে বাসায় চিকিৎসা নিচ্ছেন। বাকি কর্মকর্তারা বাসায় আইসোলেশনে থেকে চিকিৎসা নিচ্ছেন। বিসিএস প্রশাসন ক্যাডারের বর্তমান ও সাবেক মিলিয়ে এখন পর্যন্ত ১১ জন কর্মকর্তা প্রাণঘাতী এ ভাইরাসের আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, দেশে নভেল করোনাভাইরাসের সংক্রমণ মোকাবেলায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পাশাপাশি মাঠ প্রশাসনের কর্মকর্তারাও সরকারের কর্মপরিকল্পনা বাস্তবায়নে কাজ করছে। এ সংকটময় পরিস্থিতিতে মানুষকে ঘরে রাখা, করোনা আক্রান্তদের চিকিৎসা তদারকিসহ করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া ব্যক্তিদের সৎকারের বিষয়েও তাদের পদক্ষেপ নিতে হচ্ছে। তাই মাঠ প্রশাসনে কর্মরতদের আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি সবচেয়ে বেশি।

আক্রান্ত সচিবরা হলেন- স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগের সচিব মো. আলী নূর, তথ্য সচিব কামরুন নাহার এবং প্রতিরক্ষা সচিব আবদুল্লাহ আল মোহসীন চৌধুরী। এর মধ্যে মো. আলী নূর ইতোমধ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছেন। কামরুন নাহার বর্তমানে বাসায় চিকিৎসা নিচ্ছেন এবং আবদুল্লাহ আল মোহসীন চৌধুরী রাজধানীর সম্মিলিত সামরিক হাসাপতালে চিকিৎসাধীন আছেন।