তুরস্কের কোরবানির মাংস পাবে রোহিঙ্গারা

তুরস্কের কোরবানির মাংস পাবে রোহিঙ্গারা

তুরস্কের কোরবানির মাংস পাবে রোহিঙ্গারা

এএনবি (আন্তর্জাতিক ডেস্ক) ঃ মানুষের মধ্যে সেতুবন্ধন তৈরি করতে আসন্ন পবিত্র ঈদুল আজহায় বিশ্বের বিভিন্ন দেশ ও অঞ্চলে কোরবানির মাংস বিতরণের উদ্যোগ নিয়েছে তুরস্কভিত্তিক একটি দাতব্য সংস্থা। মিয়ানমারে নির্যাতনের শিকার হয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদেরও কোরবানির মাংস বিতরণ করবে 'ডেনিজ ফেনারি এসোসিয়েশন' নামের এ দাতব্য সংস্থাটি।

দেশটির বার্তা সংস্থা আনাদলু এজেন্সি জানায়, আসন্ন ঈদুল আজহায় বিশ্বের ২২টি দেশ ও অঞ্চলে কোরবানির মাংস বিতণের উদ্যোগ নিয়েছে ডেনিজ ফেনারি এসোসিয়েশন। এর মধ্যে যেসব দেশে শরণার্থী শিবির রয়েছে বা যেসব দেশ প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্ত বা যুদ্ধবিধ্বস্ত, সে এলাকাগুলোতে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে এ মাংস বিতরণ করা হবে। পাশাপাশি দরিদ্র, এতিম, বৃদ্ধ, বিধবা ও অপুষ্টিতে ভোগা মানুষদের অগ্রাধিকার দেওয়া হবে।

সংস্থাটি জানায়, ২২টি দেশ ও অঞ্চলের মধ্যে যুদ্ধাবিধ্বস্ত ফিলিস্তিনি, সিরিয়া, ইয়েমেন, কেনিয়া, সোমালিয়া এবং রোহিঙ্গাদের আবাসস্থল বাংলাদেশ ও আরাকানকে অগ্রাধিকার দেওয়া হবে। গত বছরও ঈদুল আজহায় সংস্থাটি ১০ হাজার পশু করোবানি দিয়ে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে মাংস বিতরণ করেছে। এ বছর আরো বেশি পরিমাণ মাংস বিতরণের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

তারা আরো জানায়, কিছু পশু তুরস্কতেই কোরবানি দেওয়া হবে। বাকিগুলো দরিদ ও যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশ ও অঞ্চলগুলোতে। পশু কোরবানি দেওয়ার পর স্বেচ্ছাসেবীদের মাধ্যমে এসব কোরবানির পশুর মাংস শরণার্থী শিবির, যুদ্ধবিধ্বস্ত এলাকা ও দরিদ্র এলাকার মানুষজনের মাঝে বিতরণ করা হবে। যেসব অঞ্চলে স্বেচ্ছাসেবীরা যেতে পারবে না, সেসব এলাকায় স্থানীয় সংস্থার সঙ্গে সমন্বয় করে মানুষজনের মাঝে মাংস বিতরণ করা হবে।

মাংস বিতরণ ছাড়াও ২০টি দেশে এতিমদের কোরবানির ঈদ উপলক্ষে নতুন জামা ও নগদ অর্থ বিতরণ করবে তুর্কি দাতব্য সংস্থাটি। তারা জানিয়েছে, বিশ্বের বিভিন্ন দেশ ও অঞ্চলের মানুষের মধ্যে সেতুবন্ধন তৈরি ও তাদের বেঁচে থাকার আশার আলো দেখাতেই এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।