দিনাজপুরে একদিনে নতুন আরো ১৮ করোনা রোগি আক্রান্ত রোগি শনাক্ত \ এ নিয়ে জেলায় মোট আক্রান্ত ৮২ \ সুস্থ ১৩ 

দিনাজপুরে একদিনে নতুন আরো ১৮ করোনা রোগি আক্রান্ত রোগি শনাক্ত \ এ নিয়ে জেলায় মোট আক্রান্ত ৮২ \ সুস্থ ১৩ 

দিনাজপুরে একদিনে নতুন আরো ১৮ করোনা রোগি আক্রান্ত রোগি শনাক্ত \ এ নিয়ে জেলায় মোট আক্রান্ত ৮২ \ সুস্থ ১৩ 



এএনবি ্মাহবুবুল হক খান, দিনাজপুর প্রতিনিধিঃ দিনাজপুরে গত ২৪ ঘন্টায় ৩ মহিলাসহ নতুন আরো ১৮ জন করোনা আক্রান্ত রোগি শনাক্ত হয়েছেন। এ নিয়ে জেলায় মোট করোনায় আক্রান্ত  হলেন ৮২ জন। নতুন আক্রান্ত ১৮ জনের মধ্যে ৩ মহিলাসহ ১৮ জন। একদিনে ১৮ জন আক্রান্ত উদ্বেগজনক বলে জানিয়েছে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ। 
দিনাজপুর সিভিল সার্জন ডা. মো. আব্দুল কুদ্দুস শনিবার (১৬ মে) রাত সাড়ে সোয়া ৮টায় জেলায় গত ২৪ ঘন্টায় নতুন আরো ১৮ জন করোনায় আক্রান্তের খবরটি নিশ্চিত করেন। নতুন আক্রান্ত ১৮ জনের মধ্যে ঘোড়াঘাট উপজেলাতেই ৩ মহিলাসহ ১৫ জন আর নবাবগঞ্জে একজন, ফুলবাড়ীতে একজন ও বিরল উপজেলায় একজন। এ নিয়ে জেলায় মোট ৮২ জন করোনায় আক্রান্ত হলেন। আক্রান্ত ৮২ জনের মধ্যে ৬২ জন পুরুষ, ১৭ জন মহিলা ও শিশু ৩ জন। এছাড়া শনিবার একজন সুস্থ হয়েছেন। নতুন আক্রান্তরা সবাই ঢাকা ফেরত। একদিনে ১৮ জন আক্রান্ত উদ্বেগজনক বলে জানান সিভিল সার্জন ডা. মো. আব্দুল কুদ্দুস। 
সিভিল সার্জন জানান, ১৬ মে শনিবার ঢাকা ও দিনাজপুর ল্যাব হতে মোট ১৪৭টি নমুনার ফলাফল পাওয়া গেছে। এর মধ্যে ১৮টি নমুনার ফলাফল পজিটিভ ও  বাকী ১২৯ নমুনার ফলাফল নেগেটিভ এসেছে। ১৪৭টি নমুনার ফলাফলের মধ্যে ঢাকার ল্যাব হতে প্রাপ্ত ৬৭টি নমুনা ফলাফলের মধ্যে ঘোড়াঘাট উপজেলায় ৩ মহিলাসহ ১৫টি নমুনার ফলাফল পজিটিভ ও ৫২টি নমুনার ফলাফল নেগেটিভ, আর দিনাজপুর ল্যাব হতে প্রাপ্ত ৮০টি নমুনার ফলাফলের মধ্যে ৩ নমুনার ফলাফল পজিটিভ এবং বাকী ৭৭টি নমুনার ফলাফল নেগেটিভ এসেছে। এ নিয়ে দিনাজপুর জেলায় করোনায় (কোভিট-১৯) প্রমানিত রোগির সংখ্যা ৮২ জন হলো।
তিনি জানান, গত ২৪ ঘন্টায় এক শিশুসহ এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ১৩ জন। যার মধ্যে সদর উপজেলায় ৫ জন, ফুলবাড়ীতে একজন, নবাবগঞ্জে ৩ জন, পার্বতীপুরে একজন, কাহারোলে একজন, বোচাগঞ্জে একজন ও হাকিমপুর উপজেলায় একজন। 
সিভিল সার্জন আরো জানান, আক্রান্ত ৮২ জনের মধ্যে রয়েছে সদর উপজেলায় ১৭ জন (মৃত একজনসহ), কাহারোলে ৭ জন, বিরলে ৭ জন, বোচাগঞ্জে ৫ জন, পার্বতীপুরে ৫ জন, ফুলবাড়ীতে দুইজন, নবাবগঞ্জে ৬ জন, হাকিমপুরে দুইজন, বিরামপুরে ৪ জন, ঘোড়াঘাটে ১৯ জন, চিবিরবন্দরে একজন, বীরগঞ্জে ৬ জন ও খানসামা উপজেলায় একজন।