দিনাজপুরে নতুন ১৯ জনসহ মোট করোনায় আক্রান্ত  ৩৮৮১ জন এ পর্যন্ত ৮৬ জনের মৃত্যু   

দিনাজপুরে নতুন ১৯ জনসহ মোট করোনায় আক্রান্ত  ৩৮৮১ জন এ পর্যন্ত ৮৬ জনের মৃত্যু   

দিনাজপুরে নতুন ১৯ জনসহ মোট করোনায় আক্রান্ত  ৩৮৮১ জন  এ পর্যন্ত ৮৬ জনের মৃত্যু   


এএনবি মাহবুবুল হক খান, দিনাজপুর প্রতিনিধি ঃ দিনাজপুরে গত ২৪ ঘন্টায় নতুন ১৯ জনসহ এ পর্যন্ত ৩৮৮১ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। একই সময়ে নতুন ১২ জনসহ এ পর্যন্ত ৩৬৪৯ জন সুস্থ হয়েছেন। আর এ পর্যন্ত ৮৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। তবে আক্রান্ত ৩৮৮১ জনের মধ্যে ৩৬৪৯ জন সুস্থ ও ৮৬ জনের মৃত্যু হওয়ায় বর্তমানে দিনাজপুর জেলায় করোনায় আক্রান্ত রোগির সংখ্যা রয়েছে ১৪৬ জন। 
দিনাজপুর সিভিল সার্জন ডা. মো. আব্দুল কুদ্দুছ জানান, শুক্রবার (২০ নভেম্বর) দুপুর ১২টা পর্যন্ত আগের ২৪  ঘন্টায় ১১৫টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এর মধ্যে ১৯ জনের দেহে করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় করোনায় আক্রান্ত রোগির সংখ্যা দাড়িয়েছে ৩৮৮১ জনে। একই সময়ে নতুন ১২ জনসহ এ পর্যন্ত ৩৬৪৯ জন সুস্থ হয়েছেন। এ পর্যন্ত জেলায় ৮৬ জনের মৃত্যু হয়েছে।  নতুন আক্রান্ত ১৯ জনের মধ্যে সদর উপজেলাতেই ১৪ জন। এছাড়া বীরগঞ্জে একজন, চিরিরবন্দরে একজন, কাহারোলে একজন, খানসামায় একজন ও পার্বতীপুর উপজেলায় একজন। শুক্রবার আক্রান্তের হার ছিল ১৬ দশমিক ৫২ শতাংশ।
জেলায় আক্রান্ত ৩৮৮১ জনের মধ্যে সদর উপজেলাতে সবচেয়ে বেশী ১৯৩৬ জন। এছাড়া বিরলে ২৪৯ জন, বিরামপুরে ৩০১ জন, বীরগঞ্জে ১১৯ জন, বোচাগঞ্জে ১০৯ জন, চিরিরবন্দরে ১৮০ জন, ফুলবাড়ীতে ১৪১ জন, ঘোড়াঘাটে ৮৪ জন, হাকিমপুরে ৮৩ জন, কাহারোলে ১৩৭ জন, খানসামায় ৮৯ জন, নবাবগঞ্জে ১১৮ জন ও পার্বতীপুর উপজেলায় ৩৩৫ জন। 
সিভিল সার্জন ডা. মো. আব্দুল কুদ্দুছ জানান, জেলায় এ পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়ে ৮৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে সদর উপজেলায় ৩৪ জন, বিরলে ৬ জন, বিরামপুরে ৫ জন, বীরগঞ্জে ৩ জন, বোচাগঞ্জে ৩ জন, চিরিরবন্দরে ১০ জন, ফুলবাড়ীতে ৮ জন, হাকিমপুরে একজন, কাহারোলে ৫ জন, খানসামায় ৩ জন, নবাবগঞ্জে দুইজন ও পার্বতীপুর উপজেলায় ৬ জন। জেলার ১৩টি উপজেলার মধ্যে ঘোড়াঘাট উপজেলায় এখন পর্যন্ত কারো মৃত্যু হয়নি।
তিনি আরো জানান, গত ২৪ ঘন্টায় ১০৭টি নমুনাসহ এ পর্যন্ত ২৪৬৬৩টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। গত ২৪ ঘন্টায় ১১৫টি এ পর্যন্ত ২৩৯৬৭টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। আর গত ২৪ ঘন্টায় ৮৩ জনসহ এ পর্যন্ত ২৬৩৬৩ জনকে কোয়ান্টোইনে নেয়া হয়েছে। গত ২৪ ঘন্টায় ৮৭ জনসহ কোয়ারেন্টাইন হতে ছাড় পেয়েছে ২৫০৮৬ জন। বর্তমানে হোম আইসোলেশনে রয়েছেন ১২৬ জন ও ২০ জন হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন বলে জানান সিভিল সার্জন ডা. মো. আব্দুল কুদ্দুছ।