দিনাজপুরে একদিনে আরো ৫৩ জনসহ মোট করোনায়  আক্রান্ত ২২০৭ জন এ পর্যন্ত ৪৩ জনের মৃত্যু 

দিনাজপুরে একদিনে আরো ৫৩ জনসহ মোট করোনায়  আক্রান্ত ২২০৭ জন এ পর্যন্ত ৪৩ জনের মৃত্যু 

দিনাজপুরে একদিনে আরো ৫৩ জনসহ মোট করোনায়  আক্রান্ত ২২০৭ জন এ পর্যন্ত ৪৩ জনের মৃত্যু 


এএনবি মাহবুবুল হক খান, দিনাজপুর থেকেঃ দিনাজপুরে গত ২৪ ঘন্টায় নতুন আরো ৫৩ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে জেলায় মোট করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা দাড়ালো ২২০৭ জনে। এছাড়া নতুন ১০ জনসহ এ পর্যন্ত ১৫৩৩ জন সুস্থ হয়ে বাড়ী ফিরেছেন। তবে আক্রান্ত ২২০৭ জনের মধ্যে ১৫৩৩ জন সুস্থ ও ৪৩ জনের মৃত্যু হওয়ায় বর্তমানে জেলায় করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা রয়েছে ৬৬১ জন।  
দিনাজপুর সিভিল সার্জন ডা. মো. আব্দুল কুদ্দুছ জানান, মঙ্গলবার (১১ আগষ্ট) রাত ৯টা পর্যন্ত আগের ২৪ ঘন্টায় ১৭১টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এর মধ্যে নতুন করে ৫৩ জনের দেহে করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় মোট করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগির সংখ্যা দাড়ালো ২২০৭ জনে। আর নতুন ১০ জনসহ এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ১৫৩৩ জন। এছাড়া এ পর্যন্ত ৪৩ জনের মৃত্যু হয়েছে।   
নতুন আক্রান্ত ৫৩ জনের মধ্যে সদর উপজেলাতে ২৪ জন, বিরামপুরে ৭ জন, বোচাগঞ্জে ৫ জন, বিরলে ৭ জন, কাহারোলে একজন, নবাবগঞ্জে ৪ জন, খানসামায় ৪ জন ও বীরগঞ্জ উপজেলায় একজন। অপরদিকে নতুন সুস্থ ১০ জনের মধ্যে বিরামপুরে ৫ জন, চিরিরবন্দরে দুইজন, বীরগঞ্জে দুইজন ও কাহারোল উপজেলায় একজন। 
জেলায় আক্রান্ত ২২০৭ জনের মধ্যে সদর উপজেলায় ১০০২ জন, বিরলে ১৪১ জন, বিরামপুরে ২৪৭ জন, বীরগঞ্জে ৬৩ জন, বোচাগঞ্জে ৫১ জন, চিরিরবন্দরে ১১১ জন, ফুলবাড়ীতে ১০১ জন, ঘোড়াঘাটে ৭৭ জন, হাকিমপুরে ৪৭ জন, কাহারোলে ৮৩ জন, খানসামায় ৬৪ জন, নবাবগঞ্জে ৯৪ জন ও পার্বতীপুর উজেলায় ১৫৬ জন।
তিনি জানান, এ পর্যন্ত ৪৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে সদর উপজেলায় ১৩ জন, বিরলে ৩ জন, বিরামপুরে ৩ জন, বীরগঞ্জে ৩ জন, বোচাগঞ্জে দুইজন, চিরিরবন্দরে ৫ জন, ফুলবাড়ীতে ৭ জন, কাহারোলে একজন, খানসামায় একজন, নবাবগঞ্জে দুইজন ও পার্বতীপুর উপজেলায় ৩ জন। তিনি জানান, দিনাজপুর জেলায় এ পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছে ৪২ জন। আর এ পর্যন্ত করোনাভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে ৩১ জন মৃত্যুবরণ। 
এছাড়া গত ২৪ ঘন্টায় ১৭১টি নমুনাসহ এ পর্যন্ত ১২৭০৪টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। আর গত ২৪ ঘন্টায় ১৭১টিসহ এ পর্যন্ত ১২৩৩৮টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এছাড়া গত ২৪ ঘন্টায় ১৮৫ জনসহ এ পর্যন্ত ১৯৯৮০ জনকে কোয়ান্টোইনে নেয়া হয়েছে। বর্তমানে হোম আইসোলেশনে রয়েছেন ৫৭৭ জন, প্রাতিষ্ঠানিক আইসোলেশনে রয়েছেন ২৬ জন, হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন ৫৮ জন ও এ পর্যন্ত ৪৩ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানান সিভিল সার্জন ডা. মো. আব্দুল কুদ্দুছ।