দিনাজপুরে একদিনে আরো ৫৬ জনসহ মোট করোনায় আক্রান্ত ১৬৩৭ জন এ পর্যন্ত সুস্থ ১০৭২ মোট মৃত্যু ৩৬ জন 

দিনাজপুরে একদিনে আরো ৫৬ জনসহ মোট করোনায় আক্রান্ত ১৬৩৭ জন এ পর্যন্ত সুস্থ ১০৭২ মোট মৃত্যু ৩৬ জন 

দিনাজপুরে একদিনে আরো ৫৬ জনসহ মোট করোনায় আক্রান্ত ১৬৩৭ জন এ পর্যন্ত সুস্থ ১০৭২ মোট মৃত্যু ৩৬ জন 


এএনবি মাহবুবুল হক খান, দিনাজপুর থেকে ঃদিনাজপুরে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমেই বাড়ছে। গত ২৪ ঘন্টায় নতুন আরো ৫৬ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে জেলায় মোট করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা দাড়ালো ১৬৯৩ জনে। এ পর্যন্ত ৩৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। আর নতুন ২৬ জনসহ এ পর্যন্ত ১০৭২ জন সুস্থ হয়ে বাড়ী ফিরেছেন। তবে আক্রান্ত ১৬৯৩ জনের মধ্যে ১০৭২ জন সুস্থ ও ৩৬ জনের মৃত্যু হওয়ায় বর্তমানে জেলায় করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা রয়েছে ৫৮৫ জন। 
দিনাজপুর সিভিল সার্জন ডা. মো. আব্দুল কুদ্দুছ জানান, শুক্রবার (৩১ জলাই) রাত ৯টা পর্যন্ত আগের ২৪ ঘন্টায় ১৭১টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এর মধ্যে নতুন করে ৫৬ জনের দেহে করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছে। এছাড়া ফলোআপ পজিটিভ দুইজন। এ নিয়ে জেলায় মোট করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগির সংখ্যা দাড়ালো ১৬৯৩ জনে।  এ পর্যন্ত ৩৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। আর নতুন ২৬ জনসহ এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ১০৭২ জন। 
নতুন আক্রান্ত ৫৬ জনের মধ্যে দিনাজপুর সদর উপজেলাতেই ২৪ জন, হাকিমপুরে ৭ জন, পার্বতীপুরে ৪ জন, বিরলে ৬ জন, বিরামপুরে ৭ জন, বোচাগঞ্জে দুইজন, বীরগঞ্জে একজন, কাহারোলে দুইজন ও নবাবগঞ্জ উপজেলায়  ৩ জন। অপরদিকে নতুন সুস্থ ২৬ জনের মধ্যে সদর উপজেলায় ১৮ জন, কাহারোলে দুইজন, হাকিমপুরে একজন, ফুলবাড়ীতে একজন ও পার্বতীপুর উপজেলায় ৪ জন। 
জেলায় আক্রান্ত ১৬৯৩ জনের মধ্যে সদর উপজেলায় ৭১৯ জন, বিরলে ৯৩ জন, বিরামপুরে ১৯৪ জন, বীরগঞ্জে ৪৮ জন, বোচাগঞ্জে ৩৩ জন, চিরিরবন্দরে ৯৩ জন, ফুলবাড়ীতে ৭১ জন, ঘোড়াঘাটে ৭১ জন, হাকিমপুরে ৩২ জন, কাহারোলে ৬২ জন, খানসামায় ৬০ জন, নবাবগঞ্জে ৮২ জন ও পার্বতীপুর উজেলায় ১৩৫ জন।
তিনি জানান, এ পর্যন্ত ৩৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে সদর উপজেলায় ৯ জন, বিরামপুরে ৩ জন, বীরগঞ্জে ৩ জন, বোচাগঞ্জে দুইজন, চিরিরবন্দরে ৫ জন, ফুলবাড়ীতে ৬ জন, কাহারোলে একজন, খানসামায় একজন, নবাবগঞ্জে দুইজন, পার্বতীপুরে দুইজন ও বিরল উপজেলায় দুইজন। তিনি জানান, দিনাজপুর জেলায় এ পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছে ৩৬ জন। আর এ পর্যন্ত করোনাভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে ৩০ জন মৃত্যুবরণ করেছে বলে জানান সিভিল সার্জন ডা. মো. আব্দুল কুদ্দুছ।