মোদি: পেছন থেকে ছুরি মারতে চেয়েছিল পাকিস্তান

মোদি: পেছন থেকে ছুরি মারতে চেয়েছিল পাকিস্তান

মোদি: পেছন থেকে ছুরি মারতে চেয়েছিল পাকিস্তান

এএনবিঃ করোনার মহামারিতে বিপর্যস্ত ভারত। এই অবস্থায় আজ রোববার আবারো জাতির উদ্দেশে ভাষণ দিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। ঘটনাক্রমে এদিন ছিল কার্গিল যুদ্ধের ২১তম দিবস। ফলে ভাষণ দিয়ে গিয়ে এদিন পাকিস্তানের ব্যাপক সমালোচনা করেন তিনি। অটলবিহারী বাজপেয়ী সরকারের আমলে জম্মু ও কাশ্মিরের প্রসঙ্গ তুলে যেমন পাকিস্তানের সমালোচনা করেন, তেমনি ভারতীয় সেনাবাহিনীর বীরত্বের প্রশংসাও করেন।

ভারতীয় গণমাধ্যম বলছে, রোববার ৩৪ মিনিটের বক্তৃতায় (মান কি বাত) একাধিকবার পাকিস্তানের নাম নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। এর আগে গত ২৮ জুন দেওয়া মান কি বাত-এ পূর্ব লাদাখের গালওয়ানে বিহার রেজিমেন্টের বীর সেনাদের হত্যার ঘটনা নিয়ে কথা বলেন তিনি। কিন্তু সেদিন একবারও চীনের নাম মুখে আনেননি প্রধানমন্ত্রী। অথচ চীনা সেনাদের হামলায় গত ১৫ জুন অন্তত ২০ ভারতীয় সেনা নিহত হয়।

কার্গিল যুদ্ধের প্রসঙ্গ টেনে মোদি বলেন, ‘ভারতের বন্ধুত্বের প্রতিদানে পাকিস্তান পেছন থেকে ছুরি মারতে চেয়েছিল। কিন্তু ভারতীয় সেনারা এমন শিক্ষা দিয়েছে যে, চিরকাল তা মনে রাখবে।’

পাকিস্তান কেন এমন করতে চেয়েছিল তার ব্যাখ্যাও দেন ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী। বলেন, ‘নিজেদের অভ্যন্তরীণ অস্থিরতা থেকে জনগণের দৃষ্টি ঘোরাতে এবং ভারতের জমি দখলের উদ্দেশ্যেই হামলা করেছিল পাকিস্তান।’ এ সময় ভারতীয় সেনাদের বীরত্বের প্রশংসাও করেন তিনি।

গোটা ভারতে করোনাভাইরাসের যে মহামারি চলছে সে প্রসঙ্গে মোদি বলেন, অন্যান্য দেশের তুলনায় ভারতে আক্রান্তদের সুস্থ হয়ে উঠার হার বেশি। মৃত্যুর হারও তুলনামূলক কম। তবে অসুবিধা হলেও সবাইকে মাস্ক পরতে হবে বলেও উল্লেখ করেন ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী।