সামাজিক দূরত্ব অমান্য করলে প্রত্যাহার করা হবে লকডাউনের ছাড়, কড়া হুঁশিয়ারি কেজরিওয়ালের

নয়াদিল্লী, ০৪ মে - রবিবারই লকডাউন নিয়ে একাধিক বিষয়ে ছাড় দিয়েছিলেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল (Arvind Kejriwal)। তবে কাটল না ২৪ ঘণ্টা। তার মধ্যে উলটো সুর শোনা গেল তাঁর গলায়। সামাজিক দূরত্ব না মানলে ছাড় দেওয়া হবে না কোনও কিছুতেই...

সামাজিক দূরত্ব অমান্য করলে প্রত্যাহার করা হবে লকডাউনের ছাড়, কড়া হুঁশিয়ারি কেজরিওয়ালের
নয়াদিল্লী, ০৪ মে - রবিবারই লকডাউন নিয়ে একাধিক বিষয়ে ছাড় দিয়েছিলেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল (Arvind Kejriwal)। তবে কাটল না ২৪ ঘণ্টা। তার মধ্যে উলটো সুর শোনা গেল তাঁর গলায়। সামাজিক দূরত্ব না মানলে ছাড় দেওয়া হবে না কোনও কিছুতেই এমনটাই হুঁশিয়ারি দিলেন তিনি। সোমবার থেকেই ভারতে তৃতীয় পর্যায়ের লকডাউন শুরু হয়েছে। কিন্তু একাধিক ক্ষেত্রে ছাড় দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্র। তার মধ্যে রয়েছে মদের দোকানও। আর মদের দোকান খুলতেই দেখা গেল সামাজিক দূরত্বের তোয়াক্কা না করে জড়ো হয়েছেন একাধিক মানুষ। গোটা দেশেই দেখা গিয়েছে এই ছবিটা। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের নির্দেশ অনুযায়ী, কন্টেইনমেন্ট জোনের বাইরে রেড, অরেঞ্জ ও গ্রিন জোনে সোমবার থেকে মদের দোকান খোলা হয়েছে। তবে কোনও শপিং কমপ্লেক্স নয়, শুধুমাত্র এককভাবে থাকা দোকানগুলোই খোলা হয়েছে। আর সেটা খুলতেই দেশজুড়ে দেখা গেল এক অদ্ভুত দৃশ্য। মদের দোকানের সামনে লম্বা লাইন। আর সেই লম্বা লাইন সামলাতে গিয়ে নাভিশ্বাস অবস্থা দিল্লি পুলিশের। বেলা ১২টায় দোকান খোলার সঙ্গে সঙ্গেই বাড়তে থাকে ভিড়। পরিস্থিতি সামলাতে হিমশিম খেতে হয় পুলিশকে। দিল্লির একাধিক জায়গায় তো পুলিশের সঙ্গে গণ্ডগোলও বাঁধে সাধারণ মানুষের। বাধ্য হয়ে একাধিক জায়গায় মদের দোকান বন্ধ করে দিতে বাধ্য হয় প্রশাসন। এই পরিস্থিতি দেখেই ক্ষুব্ধ হয় দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। তিনি জানান, এটা খুবই দুঃখের কেউই কোনও নিয়ম মানছেন না। ৬ ফিট বা দুই মিটারের দূরত্ব কেউই বজায় রাখছেন না। আপনাদের কাছে আমার অনুরোধ একে অপরের থেকে দূরত্ব বজার রাখুন। দয়া করে ঝুঁকি বাড়িয়ে ফেলবেন না। মদের দোকান বন্ধ করা হবে না। তবে আমাদের সকলকে কঠোর পদক্ষেপ নিতে হবে। আমাদের দায়িত্বশীল নাগরিকের মত আচরণ করতে হবে। মাত্র ২৪ ঘণ্টা আগেই লকডাউন তুলে দেওয়া জন্য কেন্দ্রকে আবেদন জানিয়েছিসলেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী। তবে একদিনেই মদের দোকানের পরিস্থিতি থেকে চমকে গিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। তাই কড়া সুড়ে আজ তিনি হুঁশিয়ারিও দিয়েছেন। তিনি বলেন, নিয়ম অমান্য করলে লকডাউনে যা যা ছাড় দেওয়া হয়েছে তা তুলে নেওয়া হবে। পরিবর্তে কঠোর পন্থা অবলম্বন করা হবে। কারণ আমাদের করোনা ভাইরাসের সঙ্গে মোকাবিলা করতে হবে। তাই মাস্ক ও সামাজিক দূরত্ব বাধ্যতামূলক। সুত্র : সংবাদ প্রতিদিন এন এ/ ০৪ মে